ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন শ্রীপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল্লাহ আল মামুন।

আদালত সূত্র জানায়, সন্ধ্যার পর থেকে মাওনা চৌরাস্তার ফুলবাড়িয়া আঞ্চলিক সড়ক ও মহাসড়কে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ সময় মাওনা-ফুলবাড়িয়া আঞ্চলিক সড়কের ক্যাফে আফসার রেস্টুরেন্টে পুরোদমে বেচা-কেনা চলছিল। এ ছাড়া ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দুই পাশে বেশ কিছু দোকান খোলা ছিল।

এসব জায়গায় কঠোর লকডাউনে বিধিনিষেধ মানা হচ্ছিল না। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ১৯ মামলায় জরিমানা হিসেবে মোট ২৪ হাজার ৫ শত টাকা আদায় করেন। রাত ৯টা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম চলে।