default-image

রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার একটি কলাবাগান থেকে আজ বুধবার সকালে এক তরুণীর (১৮) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে, ধর্ষণের পর শ্বাস রোধ করে ওই তরুণীকে হত্যা করা হয়েছে।

ওই তরুণীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রায় ছয় মাস আগে ওই তরুণীর বিয়ে হয়। কিন্তু বিয়ের পর জানা যায়, তাঁর স্বামীর আগের এক স্ত্রী আছে। বিয়ের মাসখানেক পর তিনি বাবার বাড়িতে চলে আসেন। এরপর থেকে তিনি বাবার বাড়িতেই থাকতেন। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিকভাবে বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া চলছিল। তবে স্বামীর সঙ্গে মুঠোফোনে মাঝেমধ্যে যোগাযোগ করতেন তিনি।

নিহত তরুণীর বাবার ভাষ্য, গতকাল মঙ্গলবার রাতে খাবারের পর সবাই ঘুমিয়ে পড়েন। তাঁর মেয়েও রাতের খাবার খেয়ে নিজের ঘরে ঘুমাতে যায়। কিন্তু সকালে তাকে আর ঘরে পাওয়া যায়নি। পরে বাড়ি থেকে প্রায় ৩০০ গজ দূরে খালের পাড়ের কলাবাগানে স্থানীয় ব্যক্তিরা মেয়ের লাশ দেখতে পান। ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি মেয়ের লাশ শনাক্ত করেন।

কালুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান বলেন, লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ধর্ষণের পর শ্বাস রোধ করে ওই তরুণীকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্‌ঘাটনে চেষ্টা চলছে। তবে কাউকে আটক করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন