বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বক্তারা আরও বলেন, ‘দেশে কি এত অভাব পড়েছে যে মেধাহীন অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ দিতে হবে। ভর্তি পরীক্ষায় অনেকে ভালো নম্বর পেয়েও ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন না, সেখানে কেন পোষ্য কোটায় অকৃতকার্যদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এ পোষ্য কোটায় ভর্তি হওয়া মেধাহীন শিক্ষার্থীদের দিয়ে কোনোভাবেই একটি বিশ্ববিদ্যালয় এগিয়ে যেতে পারে না। আমরা অবিলম্বে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে এ কোটা বাতিলের দাবি জানাই।’

মানববন্ধনে সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক আমান উল্লাহ খানের সঞ্চালনায় রাবি শাখার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নাইমুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সহসাংগঠনিক সম্পাদক আকাশ আলী, রাবি শাখার সমাজসেবা–বিষয়ক সম্পাদক সুজন রানা প্রমুখ বক্তব্য দেন।

প্রসঙ্গত, ৬ ডিসেম্বর ভর্তি উপকমিটির সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ে পোষ্য কোটায় ভর্তি পরীক্ষার পাস নম্বর ৪০ থেকে কমিয়ে ৩০ করা হয়। এর আগের শিক্ষাবর্ষেও অকৃতকার্য অন্তত ৪৬ জন শিক্ষার্থীকে পোষ্য কোটায় ভর্তির সুযোগ দেওয়া হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন