default-image

নরসিংদীর রায়পুরের মির্জারপুরের একটি বিল থেকে ৮০ বছর বয়সী এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল রোববার রাত আটটার দিকে মির্জারপুর ইউনিয়নের দীঘলিয়াকান্দি গ্রাম থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত ওই নারীর নাম আমদিয়া বেগম (৮০)। তিনি রায়পুরার মুছাপুর ইউনিয়নের তুলাতুলি গ্রামের মৃত আবদুল খালেকের স্ত্রী।

বার্ধক্যজনিত মানসিক সমস্যার কারণে বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর ছয় দিন ধরে আমদিয়া বেগম নিখোঁজ ছিলেন। আজ সোমবার তাঁর লাশের ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন রায়পুরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তাফা।

পুলিশ ও নিহত নারীর পরিবারের লোকজন জানান, দুই বছর ধরে আমদিয়া বেগম বার্ধক্যজনিত মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন। প্রায়ই তিনি কাউকে কিছু না বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়তেন। কয়েক দিন খোঁজাখুঁজি করে তাঁকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনতেন স্বজনেরা। ১৫ মার্চ বিকেলে তিনি বাড়ি থেকে আবার বের হন। এরপর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন। তুলাতুলি গ্রামসহ আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় তাঁকে খুঁজে পেতে মাইকিং করেন স্বজনেরা।

বিজ্ঞাপন

স্থানীয় লোকজন জানান, তিন দিন আগে ওই বৃদ্ধ নারীকে লাঠি হাতে এলাকায় ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। মাইকিং শুনে তাঁর সম্পর্কে জানতে পারলেও তাঁকে আর দেখা যাচ্ছিল না। গতকাল বিকেলে স্থানীয় কয়েকজন যুবক গরুর জন্য ঘাস আনতে ওই বিলে গেলে সেখানে তাঁর লাশ পড়ে থাকতে দেখেন। পরে তাঁদের মাধ্যমে খবর পেয়ে রাত আটটার দিকে রায়পুরা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

রায়পুরা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাসির উদ্দিন বলেন, যে বিল থেকে ওই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, তা আয়তনে অনেক বড় হলেও পানি নেই বললেই চলে। দূর থেকে কচুরিপানা আর ঘাস দেখে মনে হবে বিলের কোনো অস্তিত্বই সেখানে নেই। কাছে গিয়েও মনে হয়েছে সেখানকার মাটি খুবই শক্ত, তবে পা বাড়ালেই কোমর পর্যন্ত দেবে যায়। পুলিশ ধারণা করছে, কয়েক দিন আগে সন্ধ্যার দিকে শুকনো ভেবে বিলটি পার হওয়ার সময় তাতে দেবে গিয়েছিলেন ওই নারী। পরে আর সেখান থেকে উঠে আসতে পারেননি। তাঁর শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন