বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঈশ্বরদী থানা সূত্রে জানা গেছে, রাতে মাকসিম নিজ কক্ষেই ছিলেন। সকাল সাতটায় তাঁর কাজে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি কাজে যোগ না দেওয়ায় পাশের কক্ষের এক সহকর্মী তাঁর কক্ষে খোঁজ নিতে যান। এ সময় তিনি মাকসিমকে নিজের খাটের ওপর অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। তিনি প্রকল্প কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানালে তাঁরা থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের সাইট ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস বলেন, অচেতন অবস্থায় নিজের বিছানায় পড়ে ছিলেন মাকসিম। পরে চিকিৎসকেরা এসে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। প্রকল্পের চিকিৎসকদের ধারণা, হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বলেন, লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে সংশ্লিষ্ট দূতাবাসের সহযোগিতায় তাঁর লাশ নিজ দেশে পাঠানো হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন