default-image

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে একটি রেস্তোরাঁয় গ্যাসের লাইনে বিস্ফোরণে তিনজন অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন। শুক্রবার বেলা ৩টার দিকে আড়াইহাজার বাজারের দুবাই প্লাজার ষষ্ঠ তলায় অবস্থিত রয়েল রেস্টুরেন্টে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

একই দিন সকাল ৮টার দিকে আড়াইহাজার থানা কোয়ার্টারের একটি কক্ষে গ্যাসের লাইনের পাইপ বিস্ফোরিত হয়ে অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। তবে এতে কেউ হতাহত হননি।

রয়েল রেস্টুরেন্টের রান্নাঘরে গ্যাসের লাইনের পাইপে ছিদ্র হয়ে বিস্ফোরণে দগ্ধ তিনজন হলেন ব্যবস্থাপক ফরিদ মিয়া (৪৫), তাঁর সহকারী সামসুল আলম (২২) ও আরও এক ব্যক্তি। ফরিদ ও সামসুলকে উদ্ধার করে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে। বিস্ফোরণে রেস্তোঁরার আসবাবসহ বিপুল পরিমাণ মালামাল পুড়ে গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রান্নাঘরে বিস্ফোরণের ফলে দুবাই প্লাজা কেঁপে ওঠে। আগুনে ফরিদ ও সামসুলের দেহে আগুন ধরে যায়। তাঁদের সম্পূর্ণ পোশাক পুড়ে গিয়ে শরীর ঝলসে গেছে।

এদিকে সকাল ৮টার দিকে আড়াইহাজার থানার একটি কোয়ার্টারে গ্যাসের পাইপ বিস্ফোরিত হয়ে রান্নাঘরে আগুন লেগে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে তাঁরা এসে গ্যাসের আগুন নেভাতে সক্ষম হন। থানার যে কক্ষটিতে আগুন লাগে, সেটি আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলামের বাসার নিচতলায়। এ বাসায় নারী কনস্টেবল জান্নাতুল থাকেন। আগুনে কেউ আহত বা তেমন ক্ষয়ক্ষতি না হলেও থানা এলাকায় আগুন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

আড়াইহাজার ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. শাজাহান বলেন, দুবাই প্লাজার রয়েল রেস্টুরেন্টে রান্নাঘরের গ্যাস জমে এবং কক্ষটির দরজা জানালা বন্ধ থাকা অবস্থায় গ্যাসের চুলায় আগুন ধরাতে গেলে এ বিস্ফোরণ হয় বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। অন্যদিকে আড়াইহাজার থানায় গ্যাসের পাইপলাইনে অত্যাধিক চাপ থাকার কারণে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে তিনি জানান।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন