default-image

লকডাউনে শ্রমিকদের জন্য পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ ও রেশনিংয়ের মাধ্যমে খাদ্য সরবরাহব্যবস্থা চালুসহ বেশ কয়েকটি দাবিতে বরিশালে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ হয়েছে। বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) উদ্যোগে আজ রোববার সকালে নগরের ফকিরবাড়ি রোডে সংগঠনের কার্যালয় থেকে মিছিলটি বের হয়, যা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে মিলিত হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, করোনা সংক্রমণের প্রথম ঢেউয়ে এমনিতেই শ্রমিক ও খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষর জীবন-জীবিকা বিপর্যস্ত। এর ধকল কাটতে না কাটতে আবার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে। এ জন্য সরকার প্রথম ধাপে ‘লকডাউন’ দিয়েছে। এরপর আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে পুনরায় ‘কঠোর লকডাউন’ ঘোষণা করেছে। এতে এসব খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের মানুষেরা আরও খাদ্য সংকটে পড়বে। কিন্তু সরকার এসব মানুষের কথা ভাবছে না। শ্রমিকদের জন্য পর্যাপ্ত খাদ্য ও অর্থসহায়তা ছাড়া কোনোভাবেই লকডাউন কার্যকর করা যাবে না। বক্তারা শের-ই-বাংলা মেডিকল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আসন ও আইসিইউ বেড বৃদ্ধি এবং নগরীতে আইসোলেশন ওয়ার্ড চালু করার দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

বাসদ বরিশাল জেলা শাখার আহ্বায়ক ইমরান হাবিবের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন বাসদ জেলা শাখার সদস্যসচিব মনীষা চক্রবর্তী, শ্রমিক নেতা মাহি হাওলাদার, মিতা বেপারী, শহিদুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, নিলিমা জাহান, ছাত্রনেতা বিধান সিকদার প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, লকডাউন কার্যকর করতে অবিলম্বে শ্রমজীবীদের খাদ্য ও অর্থসহায়তার ঘোষণা দিতে হবে। পাশাপাশি করোনা চিকিৎসার যে ভয়াবহ সংকট বরিশাল বিভাগে বিরাজ করছে, তা দূর করতে করোনা ইউনিটে এবং আইসিইউ বেডসংখ্যা বাড়ানোর পাশাপাশি নগরীতে এবং বিভাগের অন্যান্য জেলায় করোনার আইসোলেশন সেন্টার চালু করতে হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন