বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অগ্নিকাণ্ডে বরগুনার ৩৭ জনের লাশ উদ্ধার করা করা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪ জনের পরিচয় মিলছে। বাকি ২৩টি লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়েছে।

লঞ্চ দুর্ঘটনায় নিখোঁজ বরগুনার তালতলী উপজেলার জুনাইদের (৭) বাবা মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘আমার ছেলে যদি লঞ্চে পুড়ে মারা যায়, তাহলে আগুন নেভানোর সময় ফায়ার সার্ভিসের পানিতে সে নদীতে ভেসে গেছে। এই নমুনা দিয়ে কার সন্ধান করবে?’

বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, বরগুনা জেলা প্রশাসন থেকে পাঠানো তালিকা চূড়ান্ত ধরেই ডিএনএর নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন