লালমনিরহাটে জেএমবি সদস্যের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আদালত
প্রতীকী ছবি

লালমনিরহাটে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) এক সদস্যকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ সোমবার দুপুরে লালমনিরহাট বিশেষ আদালতের বিচারক ও দায়রা জজ মো. মিজানুর রহমান এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত ওই ব্যক্তির নাম মো. রুহুল আমিন ওরফে বাবু (২৫)। তিনি পাটগ্রাম উপজেলার শমসেরপুর গ্রামের জমিনুর হকের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় রুহুল আমিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২০১৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর বিকেলে রংপুর র‍্যাব-১৩-এর একটি দল পাটগ্রামের রসুলগঞ্জের একটি স মিলে উপস্থিত হয়। এ সময় ছয়–সাতজন সেখান থেকে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করলে রুহুল আমিনকে র‍্যাব আটক করে। পরে রুহুল আমিনকে তল্লাশি করে একটি বিদেশি পিস্তল, গুলি, ৭৭টি ‘উগ্রবাদী বই’ ও ২৫০টি জঙ্গিবাদ-সংক্রান্ত লিফলেট উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার পরদিন র‍্যাব-১৩-এর উপপরিদর্শক (এসআই) মুহা. আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে মামলা করেন। ২০১৯ সালের ২০ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

সরকারি কৌঁসুলি আকমল হোসেন আহমেদ বলেন, আজ দুপুরে বিচারক মিজানুর রহমান আসামি রুহুল আমিনকে দোষী সাব্যস্ত করে এ রায় দেন। আসামি রুহুল আমিন যত দিন হাজতবাস করেছেন, সেটা তাঁর মোট কারাদণ্ড থেকে বাদ যাবে। আদালতের আদেশ অনুয়ায়ী রুহুল আমিনকে লালমনিরহাট জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।