default-image

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারীতে আবু ইউনুস মোহাম্মদ শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় করা মামলায় গ্রেপ্তার প্রধান আসামিকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। সোমবার বিকেলে লালমনিরহাট আমলি আদালত-৩ এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ডে নেওয়া ওই আসামির নাম হোসেন আলী ওরফে আবুল হোসেন (৪৫)।

এ নিয়ে ওই ঘটনায় করা পৃথক তিন মামলায় ১০ জনকে রিমান্ডে নেওয়া হলো। এর মধ্যে ৯ জনের রিমান্ড শেষ করে তাঁদের লালমনিরহাট জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

লালমনিরহাট পুলিশের গোয়েন্দা শাখার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, গত শনিবার ভোরে রাজধানী ঢাকার ভাটারা থানার কুড়িল বিশ্বরোড এলাকা থেকে হোসেন আলী ওরফে আবুল হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। রোববার তাঁকে পাটগ্রাম থানায় নিয়ে আসা হয়। সোমবার তাঁকে লালমনিরহাটের আদালতে সোপর্দ করে পাঁচ দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। পরে আদালত পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা বলেন, বুড়িমারীতে পবিত্র কোরআন অবমাননার অভিযোগ তুলে রংপুরের শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় পৃথক তিনটি মামলায় এখন পর্যন্ত ৩১ জনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে ৯ জনের রিমান্ড শেষ করে তাঁদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গত ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় বুড়িমারীতে কোরআন অবমাননার গুজব ছড়িয়ে আবু ইউনুস মোহাম্মদ শহীদুন্নবীকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনা ঘটে। শহীদুন্নবী রংপুর শহরের শালবন রোকেয়া সরণি এলাকার আবদুল ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে। তিনি রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক গ্রন্থাগারিক।

মন্তব্য পড়ুন 0