বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামলার এজাহার ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, রায়রাবাদ গ্রামে একই বাড়ির ইমান আলী সর্দারের ছোট ছেলে প্রবাসী মো. আলমগীরের কাছ থেকে কয়েক মাস আগে সুদে টাকা নেন নিহত শাহাজান মিয়ার ছোট ভাই আবুল কালাম। সুদের ওই টাকা সময়মতো পরিশোধ করতে না পারায় ছোট ভাইয়ের পক্ষে আরও এক মাস সময় চান নিহত মো. শাহাজান।

আজ সকালে জাহাঙ্গীর ও তাঁর লোকজন ওই জমিতে মাটি কাটা শুরু করেন। এতে বাধা দিতে গেলে বৃদ্ধ শাহাজান মিয়াকে পিটিয়ে জখম করেন তাঁরা।

এদিকে সুদের টাকা ফেরত না পেয়ে প্রবাসী আলমগীর তাঁর বড় ভাই জাহাঙ্গীরের মাধ্যমে সুদের টাকার পরিবর্তে শাহাজানের বসতঘরের পেছনে থাকা জমি দখলের পাঁয়তারা চালান। এরই ধারাবাহিকতায় আজ সকালে জাহাঙ্গীর ও তাঁর লোকজন ওই জমিতে মাটি কাটা শুরু করেন। এতে বাধা দিতে গেলে বৃদ্ধ শাহাজান মিয়াকে পিটিয়ে জখম করেন তাঁরা। একপর্যায়ে হামলাকারীরা শাহাজান মিয়াকে ওপরে তুলে ফেলে দেন। এতে ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারান তিনি। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাকসুদুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। শাহাজানের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন