বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ শনিবার দুপুরে র‌্যাব–১২–এর ৩ নম্বর কোম্পানি কমান্ডার এরশাদুর রহমান বলেন, তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে রাহাত হত্যার সঙ্গে বিপ্লবের জড়িত থাকার বিষয়টি বের হয়ে আসে। পরে গতকাল শুক্রবার রাতে কালিহাতীর এলেঙ্গা থেকে বিপ্লবকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এরশাদুর রহমান আরও বলেন, গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বিপ্লব র‌্যাবকে বলেছেন, গত মঙ্গলবার রাহাতের সঙ্গে বিপ্লব লুডু খেলেন। একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। রাহাত তখন বিপ্লবকে এতিম বলে গালি দেয়। এতে বিপ্লব ক্ষিপ্ত হয়ে রাহাতকে হত্যার সিদ্ধান্ত নেন।

হত্যার বর্ণনাও বিপ্লব র‌্যাবকে দিয়েছেন বলে এরশাদুর রহমান দাবি করেন। সিগারেট খাওয়ার কথা বলে বিপ্লব কাগুজিপাড়া গ্রামের একটি পুকুরের পাড়ে নিয়ে যান রাহাতকে। সেখানে একপর্যায়ে ব্লেড দিয়ে রাহাতের গলায় আঘাত করেন। মৃত্যু নিশ্চিত হলে রাহাতের মুঠোফোন নিয়ে বাড়ি ফিরে যান বিপ্লব।

বিপ্লবকে গ্রেপ্তারের পর তাঁর কাছ থেকে নিহত রাহাতের মুঠোফোন উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে র‌্যাব। বিপ্লবকে কালিহাতী থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন