আধুনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) স্থানীয় সদস্য মো. ফরিদ আহমদ প্রথম আলোকে বলেন, ‘শুক্রবার রাত আটটার দিকে আমার ভাতিজা দেলোয়ার হোসেনের রান্নাঘরের চালে একটি অজগর সাপ দেখে সবাই চেঁচামেচি শুরু করেন। পরে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় অজগরটি ধরে বস্তায় ভরে রাখা হয়। এরপর বন বিভাগের লোকজনকে খবর পাঠালে তাঁরা এসে অজগরটি নিয়ে যান।’

চুনতি বন্য প্রাণী অভয়ারণ্যের বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, অজগরের বাচ্চাটি খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে ঢুকে পড়লে স্থানীয় লোকজন সেটিকে আটক করে বন বিভাগকে খবর দেন। পরে তা উদ্ধার করে চুনতি বন্য প্রাণী অভয়ারণ্যে ছেড়ে দেওয়া হয়। অজগরটির বয়স চার-পাঁচ মাস। এটি পাঁচ ফুট লম্বা ও ওজনে প্রায় চার কেজি হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন