বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাসার কাছাকাছি পৌঁছালে কে বা কারা পেছন দিক দিয়ে তাঁকে লাঠি দিয়ে আঘাত করেন। এ সময় তিনি মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে চিৎকার দেন। তাঁর চিৎকার শুনে বন বিভাগের লোকজনকে এগিয়ে আসতে দেখে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যান। পরে বন বিভাগের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাঁকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বন্য প্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের চুনতি বন্য প্রাণী অভয়ারণ্য রেঞ্জ কর্মকর্তা মাহমুদ হোসাইন প্রথম আলোকে বলেন, দুর্বৃত্তদের লাঠির আঘাতে ফরিদের ডান হাত ভেঙে যায়। ধারণা করা হচ্ছে, কাঠচোর চক্রের সদস্যরা তাঁর ওপর হামলা চালিয়েছে।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আতিকুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ‘বন্য প্রাণী অভয়ারণ্যের এক কর্মকর্তার ওপর হামলা হয়েছে বলে শুনেছি। এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগতভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন