default-image

নড়াইলের লোহাগড়ায় ছাত্রলীগ নেতা সজীব মুসল্লিকে (২৫) হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে পেটানো হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ শনিবার ভোরে উপজেলার পারমল্লিকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সজীব ওই গ্রামের মুজিবর মুসল্লির ছেলে। তিনি ঢাকা কলেজের সম্মান তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। উপজেলা ছাত্রলীগের আসন্ন কাউন্সিলের সভাপতি প্রার্থী তিনি।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) আবদুল্লাহ আল মামুন বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, সজীব নামের ওই তরুণকে হাতুড়ি ও লোহার রড দিয়ে পেটানো হয়েছে বলে ধারণা করছেন। তাঁর ঘাড় থেকে পা পর্যন্ত বেধড়ক পেটানোর দাগ রয়েছে। পুরোপুরি জ্ঞান এখনো ফেরেনি। আশা করছেন, চিকিৎসায় আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে।

আজ শনিবার ভোরে উপজেলার পারমল্লিকপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হামলার শিকার সজীব উপজেলা ছাত্রলীগের আসন্ন কাউন্সিলের সভাপতি প্রার্থী।
বিজ্ঞাপন

সজীবের মা বেবী বেগম বলেন, ভোর চারটার দিকে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির পাশের গরুর খামারের দিকে যান সজীব। এ সময় দুর্বৃত্তরা তাঁর ওপর হামলা করে। অজ্ঞান অবস্থায় তাঁকে পড়ে থাকতে দেখে পরিবারের লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়। কারা, কেন এ হামলা করেছে, তা বুঝতে পারছেন না।

উপজেলা ছাত্রলীগের আগামীতে যে কমিটি হবে, তার সভাপতি পদে শক্তিশালী প্রার্থী সজীব। ধারণা করা হচ্ছে, দলীয় প্রতিপক্ষরা তাঁর ওপর হামলা করেছে। তাঁকে হাতুড়ি দিয়ে নির্মমভাবে পেটানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করা হবে।
রাশেদুল হাসান, লোহাগড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক

উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান বলেন, উপজেলা ছাত্রলীগের আগামীতে যে কমিটি হবে, তার সভাপতি পদে শক্তিশালী প্রার্থী সজীব। ধারণা করা হচ্ছে, দলীয় প্রতিপক্ষরা তাঁর ওপর হামলা করেছে। তাঁকে হাতুড়ি দিয়ে নির্মমভাবে পেটানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করা হবে।

লোহাগড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুমন হাওলাদার এ ঘটনার তদন্ত শুরু করছেন। তিনি বলেন, সজীবের জ্ঞান ফিরলে তাঁর সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি পরিষ্কার হওয়া যাবে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন