লোহাগড়ায় ৪৫ মিনিটে হবে করোনা পরীক্ষা

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য ৩৮ জেলায় এখনো পিসিআর যন্ত্র নেই, সেখানে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জিন এক্সপার্ট প্রযুক্তির মাধ্যমে এ পরীক্ষার ব্যবস্থা হলো। এ প্রযুক্তির মাধ্যমে মাত্র ৪৫ মিনিটে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা যাবে।
আজ শনিবার দুপুরে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যুক্তরাষ্ট্রে উদ্ভাবিত জিন এক্সপার্ট প্রযুক্তির মাধ্যমে করোনাভাইরাস পরীক্ষার ব্যবস্থার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল মান্নান এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

ঢাকার বাসা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বেলা একটায় এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন সচিব মো. আবদুল মান্নান। এর আগে দুই ঘণ্টাব্যাপী উদ্বোধনী আলোচনা হয়।
মো. আবদুল মান্নান বলেন, স্থানীয় সাংসদ মাশরাফি বিন মুর্তজার প্রচেষ্টায় বিদ্যুৎগতিতে লোহাগড়ায় এ প্রযুক্তি চালু করা হলো। কয়েক দিন আগে নড়াইলে এটি চালু হয়েছে। মাশরাফি বাংলাদেশের কিংবদন্তি। শুধু ক্রীড়াক্ষেত্রেই নন, নেতৃত্বগুণেও সারা বিশ্বে আলোচিত। তাঁর মতো অন্য এলাকার সাংসদেরা এগিয়ে এলে, মাঠপর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবার দ্রুত উন্নয়ন সম্ভব হবে। মাশরাফির চাহিদা মোতাবেক এক মাসের মধ্যে লোহাগড়া হাসপাতালে নতুন অ্যাম্বুলেন্স দেওয়া হবে। হাসপাতালটিকে ৩১ শয্যা থেকে ৫০ শয্যায় উন্নীত করতে জনবল দ্রুত অনুমোদনের ব্যবস্থা করা হবে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ‘এটি চালু করতে সহায়তা করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (গ্লোবাল ল্যাবরেটরি ইনিশিয়েটিভ) কোর গ্রুপ সদস্য ও ইউএসএআইডি সাপোর্টেড আইডিডিএস প্রকল্পের জ্যেষ্ঠ যক্ষ্মা ডায়াগনস্টিক বিশেষজ্ঞ সরদার তানজির হেসেন। তিনি লোহাগড়ার সন্তান। সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, রাজনীতিক ও এলাকার কৃতী মানুষের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় এগিয়ে যেতে চাই।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সরদার তানজির হেসেন জানান, করোনাভাইরাস পরীক্ষায় (এক্সপার্ট এক্সপ্রেস সার্স-কোভ-২ টেস্ট) অত্যাধুনিক এ পদ্ধতি খুবই সহজ এবং সাফল্য লাভ করেছে। শতভাগ সঠিক ফলাফল দিচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা অনুমোদিত ও বাংলাদেশ সরকার স্বীকৃত এ পদ্ধতিতে মাত্র ৪৫ মিনিটে করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা যায়। ৪৫ মিনিটে একসঙ্গে চারজনের নমুনা পরীক্ষা করা যাবে।
ভিডিও কনফারেন্সে আরও বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা ও সিভিল সার্জন মো. আবদুল মোমেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা শরীফ সাহাবুর রহমান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। সঞ্চালনা করেন চিকিৎসা কর্মকর্তা রিপন কুমার ঘোষ। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সরদার তানজির হেসেন, ইউএনও মুকুল কুমার মৈত্র, হাসপাতালের আরএমও আবদুল্লাহ আল মামুন, লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান, সাংবাদিক সৈয়দ খায়রুল ইসলাম প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন