default-image

সিরাজগঞ্জ পৌর শহরে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন এক নারী। পরে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাঁকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠান। শনিবার বেলা ২টার দিকে পৌর শহরের শহীদ শামসুদ্দিন স্টেডিয়ামের প্রধান ফটক-সংলগ্ন সড়কে এই ঘটনা ঘটে।
ওই নারীর নাম শারমিন সুলতানা মল্লিক (৩৮)। তিনি শহরের কালীবাড়ি সড়ক এলাকার আবদুল হাকিমের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শারমিন সুলতানা সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার হাটিকুমরুল ইউনিয়নের পাঁচালিয়া এলাকার সুজন আহম্মেদ নামে এক ব্যক্তিসহ পাঁচজন মিলে কেবল অপারেটরের ব্যবসা করেন। সুজন আহম্মেদ বিভিন্ন সময় তাঁর কাছে থেকে ১৯ লাখ টাকা ও ব্যবসায়ের অংশীদারত্ব কৌশলে লিখে নেন। ওই পাওনা টাকা ফেরত চাইলে ও অংশীদার দাবি করলে বিভিন্ন সময়ে দুজনের মধ্যে বিবাদ হয়। এ নিয়ে শারমিনকে হুমকিও দিয়েছেন সুজন। এর প্রতিকার চেয়ে না পেয়ে ক্ষোভে-দুঃখে নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন শারমিন। এ সময় লোকজন ছুটে গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। তবে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছেন, ওই নারীর গুরুতর কোনো ক্ষতি হয়নি।

বিজ্ঞাপন

খবর পেয়ে সিরাজগঞ্জ সদর থানা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আক্তার ওই হাসপাতালে গিয়ে আহত ওই নারীর খোঁজখবর নিয়েছেন। এদিকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টার ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দিন ফারুকী বলেন, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে এ বিষয়ে তাঁরা অবগত হয়েছেন। তবে এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন