default-image

শরীয়তপুর সদর উপজেলায় বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে সায়েদ ব্যাপারী (৩০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছে দুই শিশু। আহত শিশুদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আজ শুক্রবার বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার ডোমসার ইউনিয়নের ডোমসার জগৎচন্দ্র ইনস্টিটিউশন স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত সায়েদ ব্যাপারী উপজেলার তুলাসার ইউনিয়নের দড়িহাওলা গ্রামের বাসিন্দা। তিনি দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন এলাকায় বেলুন বিক্রি করছিলেন। আর আহত দুজন হলো বেলুন বিক্রেতার ছেলে জাহিদ হাসান (১১) ও ডোমসার গ্রামের দেলোয়ার মাতবরের ছেলে সিয়াম মাদবর (৫)।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ডোমসার জগৎচন্দ্র ইনস্টিটিউশন স্কুল অ্যান্ড কলেজ মাঠে একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা চলছিল। ওই মাঠের দক্ষিণ-পূর্ব কোণে বেলুন বিক্রি করছিলেন সায়েদ। একপর্যায়ে তাঁর বেলুন ফুলানোর গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই মাথার খুলি উড়ে মারা যান সায়েদ। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশু জাহিদ ও সিয়ামকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

শরীয়তপুর সদরের পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। সায়েদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। আহত দুই শিশুকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।

মন্তব্য পড়ুন 0