বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওই ছাত্রী অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, গতকাল বেলা দুইটার দিকে ওই ছাত্রী পড়াতে যাওয়ার পথে নগরের মদিনা মার্কেট এলাকায় পথ আটকে মুঠোফোন নম্বর চান সুমন দাশ। তিনি মুঠোফোন নম্বর দিলে তাঁকে একাধিকবার কল করে কথা বলার চেষ্টা করেন ওই ছাত্র। পড়ানো শেষ করে ওই ছাত্রী ফেরার সময় সুমন কফি খাওয়ার প্রস্তাব দেন। তাঁর প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সুমন ওই ছাত্রীকে জোর করে কফি খেতে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি শারীরিকভাবে হেনস্তা করেন।

এ বিষয়ে শাবিপ্রবির ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আবু হেনা প্রথম আলোকে বলেন, রাতেই ওই ছাত্রকে জিজ্ঞাসাবাদ করে অভিযোগের বিষয়ে সত্যতা পাওয়া গেছে। বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা বোর্ডে পাঠানো হবে। তাঁরা অধিকতর তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেবেন। এ বিষয়ে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আজ মঙ্গলবার বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের কাছে উপস্থাপন করা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন