default-image

সামাজিক অবক্ষয়ের কারণে এখন অনেকে শিক্ষকদের সম্মান করতে চান না। তবে শিক্ষকেরা সমাজ নির্মাণ করেছেন, করে যাবেন। শিক্ষার্থীবান্ধব শিক্ষক এখনো দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে আছে। শিক্ষককে সম্মান করলে সে সম্মান সমাজই ফিরে পাবে। শিক্ষকদের সম্মানিত করতে প্রথম আলোর এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়, এতে এই পেশার মর্যাদা আরও বৃদ্ধি পাবে।

শনিবার ‘আইপিডিসি-প্রথম আলো প্রিয় শিক্ষক সম্মাননা’র খুলনা অঞ্চলের ‘অনলাইন সুধী সংযোগ’–এ বক্তারা এসব কথা বলেন। করোনা পরিস্থিতিতে এবার ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে সুধী সংযোগ অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, সাংস্কৃতিক কর্মী, চিকিৎসক, ব্যবসায়ীসহ নানা শ্রেণি-পেশার বিশিষ্টজনেরা।

অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন প্রথম আলোর যুব কর্মসূচির সমন্বয়ক মুনির হাসান। তিনি বলেন, দেশজুড়ে ছড়িয়ে থাকা অনন্য শিক্ষকদের খুঁজে বের করে সম্মানিত করার আয়োজন হচ্ছে ‘আইপিডিসি-প্রথম আলো প্রিয় শিক্ষক সম্মাননা’। আইপিডিসি ফিন্যান্সের যশোর শাখা ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দীন বলেন, ‘মহান পেশার সঙ্গে যুক্ত আলোকিত মানুষ গড়ার কারিগরদের সম্মাননা জানানোর এ উদ্যোগে প্রথম আলোকে সঙ্গে পেয়ে আমরা গর্বিত।’

সুধী সংযোগে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, শিক্ষকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। তাঁরা মানুষ গড়ার কারিগর। এ পেশায় যুক্ত ব্যক্তিদের আর্থিক ও সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে। প্রথম আলো বিভিন্ন সৃজনশীল কাজের সঙ্গে যুক্ত। প্রথম আলোর প্রিয় শিক্ষক সম্মাননা অনন্য উদ্যোগ।

বিজ্ঞাপন
default-image

প্রথম আলোর খুলনা প্রতিনিধি উত্তম মণ্ডলের সঞ্চালনায় সুধী সংযোগে যুক্ত হয়ে বক্তব্য দেন খুলনার আযম খান সরকারি কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক সেলিনা বুলবুল, সরকারি বিএল কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক শরীফ আতিকুজ্জামান, বাগেরহাট সরকারি ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ অমিত রায় চৌধুরী, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা ডিসিপ্লিনের প্রভাষক মাজিদুল ইসলাম, সচেতন নাগরিক কমিটির (সনাক) বাগেরহাটের সভাপতি অধ্যাপক চৌধুরী আবদুর রব, সরকারি আযম খান কমার্স কলেজের সহকারী অধ্যাপক তারক চাঁদ ঢালী, খুলনা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, খুলনা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগনিয়ন্ত্রণ) শেখ সাদিয়া মনোয়ারা, খুলনা জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফারহানা নাজ, জেলা কালচারাল কর্মকর্তা সুজিৎ কুমার সাহা।

অনলাইনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে আরও যুক্ত হয়েছিলেন বাগেরহাটের সমাজকর্মী ও লেখক শেখ মুশফিকুর রহমান, সাতক্ষীরার সমাজকর্মী ও শিক্ষক হাফিজুর রহমান, খুলনার দাকোপের বাজুয়া এসএন কলেজের সহকারী অধ্যাপক হেমন্ত কুমার বৈদ্য, সরকারি বিএল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মামুন কাদের, রূপসার অনুশীলন মজার স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক অলোক চন্দ্র দাস, বাগেরহাট সুন্দরবন মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র রায়, ঝালকাঠি রাজাপুর বড়ইয়া ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক নীল কমল সানা, প্রকৌশলী অসীম ঘরামী, খুলনা পিটিআইয়ের ইনস্ট্রাক্টর সঞ্জয় মণ্ডল, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের প্রধান শিক্ষক স্বর্ণকমল রায়, নারীনেত্রী সিলভী হারুন, সালেহীন প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় ও পুনর্বাসনকেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা এস এম আলমগীর হোসেন, কৈলাশগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মানিক চন্দ্র গাইন, বাজুয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক বিদেশ রায়, ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মোছাদ্দেক হোসেন, দাকোপ-খুলনা শিক্ষা পরিবারের সহসভাপতি শেক্সপিয়ার রায় প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন
default-image

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, শ্রেষ্ঠ শিক্ষক অনেকেই হয়, তবে প্রিয় শিক্ষক হওয়াটা খুব সহজ নয়। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আরও কীভাবে যুক্ত হওয়া যায়, সে বিষয়ে শিক্ষকদের আরও গুরুত্ব দিতে হবে। শিক্ষার্থীর যেকোনো ধরনের ব্যর্থতার দায় শিক্ষকেরও কাঁধে বর্তায়। দেশে যেসব ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে অনেক শিক্ষার্থী তাঁর সঙ্গে যুক্ত থাকছে। এই ব্যর্থতার দায় কিন্তু শিক্ষকেরও। কেউ কেউ ভালোবেসে এখন আর শিক্ষকতা পেশায় আসেন না। অনেকে বাধ্য হয়ে আসেন, ফলে তাঁদের কন্ট্রিবিউশন সেভাবে থাকে না। আবার শিক্ষকেরা মানবসম্পদ তৈরি করেন, অথচ তাঁদের মূল্যায়নটা সেভাবে হয় না।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরির তাগিদ দিয়ে বক্তারা বলেন, শিক্ষকেরা শুধু শেখাননি, ভালো মানুষ হতে অনুপ্রাণিত করেছেন। কীভাবে সমাজকে আলোকিত করা যায়, ভালো মানুষ হওয়া যায়, তা শিক্ষকেরাই ঠিক করে দেন। শিক্ষকদের সামাজিক সম্মান নিশ্চিত না করলে মননশীল ও রুচিশীল সমাজ গড়া সম্ভব হবে না। প্রথম আলো শিক্ষকদের সম্মানিত করার যে উদ্যোগ নিয়েছে, সেটা নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়।

আয়োজকেরা জানান, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষককে দেওয়া হবে এই সম্মাননা। একজন মনোনয়নকারী সর্বোচ্চ তিনজন শিক্ষকের মনোনয়ন জমা দিতে পারবেন। মনোনয়নকারীর বয়স হতে হবে কমপক্ষে ১৮ বছর। অনলাইনে নির্দিষ্ট ফরমে আবেদন করা যাবে (www.priyoshikkhok.com) এই ওয়েব ঠিকানায়।
অনুষ্ঠানে সহযোগিতা করেন প্রথম আলো খুলনা বন্ধুসভার সদস্যরা।

মন্তব্য পড়ুন 0