বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় গতকাল রোববার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন ব্যাটারিচালিত ভ্যানের মোখলেছুর রহমান (৬৫)। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর আজ সোমবার সকালে তাঁর গলাকাটা লাশ উদ্ধার হয়েছে। তবে তাঁর ভ্যানটি পাওয়া যায়নি।

মোখলেছুর রহমানের বাড়ি উপজেলার কিচক ইউনিয়নের তালপুকুরিয়া গ্রামে। বাড়ি থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে একটি আদাখেত থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের ধারণা, মোখলেছুর রহমানকে গলা কেটে হত্যার পর তাঁর ভ্যান নিয়ে পালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

আজ সকাল সাড়ে আটটার দিকে শিবগঞ্জের ময়দানহাটা ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সোবহানপুর-শীতলপাড়াসংলগ্ন একটি আদাখেত থেকে মোখলেছুর রহমানের গলাকাটা লাশ উদ্ধার হয়।

বিজ্ঞাপন

থানা-পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, বিকেলে বাড়ি থেকে ব্যাটারিচালিত ভ্যান নিয়ে বের হন মোখলেছুর রহমান। রাত আটটায় সর্বশেষ তাঁর ছেলে রাস্তায় তাঁকে যাত্রী বহন করতে দেখেন। এরপর তিনি আর বাড়িতে ফেরেননি। আজ সকালে বাড়ি থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে আদাখেতে গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেন স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠান। এর আগে পরিবারের লোকজন লাশ শনাক্ত করেন।

শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, ছিনতাইয়ে বাধা দেওয়ায় দুর্বৃত্তরা ওই চালককে গলা কেটে হত্যার পর ভ্যান নিয়ে পালিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় দুপুর পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি। খুনিদের শনাক্ত ও ছিনতাই করা ভ্যান উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন