default-image

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় ভূমিকম্পে ফাটল দেখা দেওয়া মাটির দেয়ালের পাশে মুঠোফোনে গেম খেলার সময় চাপা পড়ে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া সিয়াম (১৪) নামের এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে উপজেলার বিহার ইউনিয়নের শোলাগাড়ি পশ্চিমপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।ৎ

সিয়াম উপজেলার শোলাগাড়ি পশ্চিমপাড়ার ফরহাদ হোসেনের ছেলে। সে আলীগ্রাম মাদ্রাসায় পড়ালেখা করত।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও শিবগঞ্জ থানার পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আজ সকাল সাড়ে আটটার কিছু আগে এলাকায় মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয়। ভূমিকম্পে উপজেলার বিহার ইউনিয়নের শোলাগাড়ি পশ্চিমপাড়া গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের মাটির বাড়ির সীমানাপ্রাচীরে ফাটল দেখা দেয়।

বিজ্ঞাপন

দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী মাজেদা বেগম বলেন, বেশ পুরোনো মাটির সীমানাপ্রাচীরটি আগে থেকেই ফাটল দেখা দেওয়ায় হেলে যাতে না পড়ে এ জন্য বাঁশের খুঁটি দিয়ে আটকে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু আজ সকালের ভূমিকম্পে দেয়ালটি বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এটি ধসে পড়ে সিয়াম মারা যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ভূমিকম্পের ঘণ্টা খানেক পর দেলোয়ারের প্রতিবেশী ফরহাদ হোসেনের কিশোর ছেলে সিয়াম ক্ষতিগ্রস্ত মাটির দেয়ালের পাশে বসে মুঠোফোনে গেম খেলছিল। এ সময় আকস্মিক দেয়াল ধসে সিয়াম তাতে চাপা পড়ে। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন