বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, হারুনুর রশীদ খানকে শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি মো. মুহসীন নাজিরকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হলো। মুহসীন নাজির শিবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম ভূঁইয়ার সঙ্গে সমন্বয় করে দলীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবেন। তবে ঠিক কী কারণে মো. হারুনুর রশীদ খানকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো, তা ওই বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ নেই।

উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা–কর্মীরা বলছেন, হারুনুর রশীদ খানকে কেন্দ্র করেই স্থানীয় আওয়ামী লীগের সব কর্মসূচি চলত। তিনি ইচ্ছেমতো যোগ্যতা বিবেচনা না করে স্বজনদের মধ্যে পদ-পদবি বিতরণ করে সংগঠন তৈরি করেছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে নেতা–কর্মীদের দলীয় পদ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। মনোনয়ন বাণিজ্য, নিয়োগ-দুর্নীতির অভিযোগও করছেন নেতারা।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৯ সালে একটি ইউনিয়নের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগ ওঠে মো. হারুনুর রশীদ খানের বিরুদ্ধে। এই বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়। এর জেরে কেন্দ্রে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ গেলে কেন্দ্রের নির্দেশে তাঁকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মো. হারুনুর রশীদ খান বলেন, ‘আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করে আমি নাকি বক্তব্য দিয়েছি, এমন অভিযোগ কেন্দ্রে জানিয়েছেন বর্তমান ও সাবেক সাংসদ। ২০১৯ সালে পুটিয়া ইউনিয়নের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে আমার বক্তব্যের একটি অংশ নেত্রীর কাছে উপস্থাপন করা হয়েছে। এ কারণে আমাকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যে অভিযোগ আমার বিরুদ্ধে করা হয়েছে, তা মিথ্যা। এটি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ।’ তিনি বলেন, তিনি একটি আবেদন কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে পাঠাবেন। তাঁর বিশ্বাস, নেত্রী বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করবেন। এই বিষয়ে তিনি সংবাদ সম্মেলন করে সব জানাবেন।

জানতে চাইলে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জি এম তালেব হোসেন বলেন, সংগঠনের আদর্শবিরোধী নানা কার্যকলাপ ও নৈতিক স্খলনের জন্য হারুনুর রশীদ খানকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। তিনি আশা করছেন, যাঁকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করা হয়েছে, তিনি নতুন উদ্যমে স্থানীয় নেতা–কর্মীদের নিয়ে দলে সাংগঠনিক কাঠামো পুনরুদ্ধার করবেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন