বাজারের বণিক সমিতির সভাপতি বেলায়েত হোসেন বলেন, দীর্ঘদিন পর আজ এত বড় বাগাড় বাজারে ওঠায় উৎসুক অনেক ক্রেতা তা দেখতে আসেন। পরিমাপ করে দেখা হয়, মাছটির ওজন ৪৭ কেজি। তবে এককভাবে কেনার জন্য ক্রেতা না থাকায় ওই দুই মাছ ব্যবসায়ী মাছটি কেটে ভাগা দেন। এরপর প্রতি কেজি ১ হাজার ২০০ টাকা দরে ৫৬ হাজার ৪০০ টাকায় বিক্রি করেন।

শিবালয় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন বলেন, শিবালয় ও পাশে হরিরামপুরে যমুনা ও পদ্মা নদীতে ছোট-বড় বিভিন্ন মাছ ধরা পড়ছে। গত কয়েক মাসে হাতে গোনা কয়েকটি বড় মাছ পাওয়া গিয়েছে। তবে অনেক দিন পর এত বড় বাগাড় মাছটি পাওয়া গেছে। স্বাদের ভিন্নতা থাকায় এখানকার মাছের কদরও বেশি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন