বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গত ১১ অক্টোবর রাতে কুড়িগ্রাম সার্কিট হাউসে জেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন। তাঁর উপস্থিতিতে স্লোগান দেওয়াকে কেন্দ্র করে জেলা আওয়ামী লীগ ও জেলা ছাত্রলীগের নেতা–কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমানসহ ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা–কর্মী আহত হন।

ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে জেলা ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে এমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে ছাত্রলীগের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে।

সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সংগঠনের জেলা শাখার সাংগঠনিক কার্যক্রম স্থগিতের সিদ্ধান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘কমিটি ঘোষণার পর থেকেই আমাদের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচার চলছিল। আমরা ষড়যন্ত্রের শিকার। আশা করি, আমরা এই দুঃসময় অতিক্রম করব এবং সত্যের জয় নিয়ে দায়িত্ব ফিরে পাব।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন