বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ‘দলে নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকবেই, এ প্রতিযোগিতা যেন প্রতিহিংসায় পরিণত না হয়। দল যে সিদ্ধান্ত নেবে, সেটা বাস্তবায়নের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্যই আমরা দল করি।’

স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকারের প্রতি ইঙ্গিত করে নানক বলেন, ‘আমাদের বিরোধী একজন প্রার্থী আছেন; যিনি বলেন, তাঁর সঙ্গে আওয়ামী লীগ আছে, হেফাজত আছে, বিএনপিও আছে। অথচ তাঁকে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পদ থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তাহলে আপনি এখন কোথায়?’ তিনি দলের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আত্মতৃপ্তিতে ভোগার কারণ নেই। সাপকে বিশ্বাস করা যায়, বিএনপিকে বিশ্বাস করা যায় না।’

এক প্রশ্নের জবাবে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচন নিয়ে দলে দ্বিধা নেই, দ্বন্দ্বও নেই। জেলা ও মহানগর কমিটি ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনে কাজ করে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগ নেতার টাকা চাওয়ার অডিও ফাঁস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি। আমরা যতটুকু শুনেছি, তিনি আমাদের প্রার্থী আইভীর নির্বাচনের জন্য কোনো টাকা চাননি। ওই ব্যক্তি (নান্নু) তাঁর (খোকন সাহা) দীর্ঘদিনের মক্কেল। তিনি তাঁর কাছে অর্থ চাইতেই পারেন। এর বাইরে এখন পর্যন্ত কিছু পাচ্ছি না। আইভী কোনো নির্বাচনেই কোনো ব্যবসায়ীর কাছ থেকে টাকা নিয়ে নির্বাচন করেননি, এবারও করবেন না।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন