default-image

শেরপুরে অভিনব কায়দায় সেতুর টোল আদায়ের ইজারাদারের কাছ থেকে ৩৫ লাখ টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। আজ রোববার দুপুরে জেলা শহরের শেরীপাড়া মিয়াবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের কাছ থেকে শেরপুর-জামালপুর সড়কের ব্রহ্মপুত্র সেতুর টোল আদায়ের ইজারা নিয়েছে মেসার্স মীর ট্রেডার্স নামের একটি প্রতিষ্ঠান। আজ রোববার দুপুরে প্রতিষ্ঠানটির অংশীদার নুর হোসেন (৫২) ও তাঁর ভাতিজা লিটন রানা (৩৫) ইজারা মূল্যের শেষ কিস্তি বাবদ ৩৫ লাখ টাকা ব্যাংকে জমা দিতে মোটরসাইকেলযোগে শেরপুর শহরে আসছিলেন। লিটন রানা মোটরসাইকেলটি চালাচ্ছিলেন। শহরের প্রবেশমুখ শেরীপাড়া মিয়াবাড়ি এলাকায় পৌঁছালে পাঁচজনের একটি দল মোটরসাইকেলটির গতিরোধ করে।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ বলছে, ওই ব্যক্তিরা নিজেদের ‘আইনের লোক’ বলে পরিচয় দেয়। একপর্যায়ে তারা লিটনের হাতে হাতকড়া পরিয়ে মোটরসাইকেলটির হাতলের সঙ্গে আটকে রাখে। নুর হোসেন প্রতিবাদের চেষ্টা করেন। তখন ওই ব্যক্তিরা তাঁর চোখে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে দেয়। এরপর তাঁর কাছে থাকা ৩৫ লাখ টাকার ব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়। ওই ছিনতাইকারীরা দুটি মোটরসাইকেলে চড়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন নুর মিয়া ও লিটনকে উদ্ধার করেন। হাতকড়ায় ঘষা লেগে লিটনের হাতে ক্ষত সৃষ্টি হয়। দুজনই পরে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন।
খবর পেয়ে পরিদর্শন করেছেন শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি মনিরুল আলম ভূঁইয়া।

পুলিশ কর্মকর্তা হান্নান মিয়া আজ বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন, এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন। পুলিশ ছিনতাইয়ের ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার ও টাকা উদ্ধারের জন্য অভিযান শুরু করেছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন