বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় আওয়ামী লীগের তিন নেতা অভিযোগ করেন, গতকাল বেলা সাড়ে তিনটায় সম্মেলন শুরু হয়। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে শুরু হয় কাউন্সিল। নতুন কমিটি গঠনের শেষ সময়ে ওয়ার্ডের সভাপতিপ্রত্যাশী আবদুল আলিম ওরফে চঞ্চলসহ অন্তত ১০ জন লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা করেন। এ সময় চারজন আহত হয়েছেন।

হামলার বিষয়ে জানার জন্য আজ সকালে মুঠোফোনে আবদুল আলিমের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। তিনি হামলার ঘটনা নিয়ে কোনো কথা বলেননি। তবে আবদুল আলিমের বড় ভাই সেলিম তালুকদার বলেন, সভাপতি পদে আবদুর রাজ্জাক আকন্দর নাম ঘোষণার পরই দলীয় নেতা-কর্মীরা তা মেনে নেননি। এ কারণে উত্তেজনার এমন ঘটনা ঘটেছিল।

সীমাবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বর্তমান সভাপতি আবদুল মান্নান বলেন, গতকাল আওয়ামী লীগের সম্মেলন–পরবর্তী কাউন্সিলের সময় তিনি উপস্থিত ছিলেন। কাউন্সিলে নতুন সভাপতি হিসেবে আবদুর রাজ্জাক আখন্দর নাম ঘোষণার পরই দলীয় কিছু নেতা-কর্মীর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম পোদ্দার বলেন, যাঁরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের রাজনীতি করেন, তাঁরা কখনোই সম্মেলনে প্রতিপক্ষের ওপর এমন হামলা ঘটাতে পারে না। গতকাল রাতে এই হামলার ঘটনায় আওয়ামী লীগের আদর্শের রাজনীতি ওপর হামলা করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন