বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ দুপুরে কবরস্থান ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো. আবু বক্কর সিদ্দিক প্রথম আলোকে বলেন, কবর থেকে ১১টি কঙ্কাল চুরি হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ছয়জন পুরুষ ও পাঁচজন নারী। প্রাথমিকভাবে কঙ্কাল চুরি যাওয়া ছয় মৃত ব্যক্তির নাম জানা গেছে। তাঁরা হলেন নজমুল হোসেন, তফছের আলী, মোফাজ্জল হোসেন, স্বাধীন, বেচু মিয়া ও সোহেল। এসব ব্যক্তির লাশ ছয় মাস আগে কবর দেওয়া হয়েছিল।

কবরস্থান ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মো. আবদুল হাই প্রথম আলোকে বলেন, কঙ্কাল চুরি যাওয়ার ঘটনায় তাঁরা সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করবেন।
শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মুনসুর আহাম্মদ বলেন, কঙ্কাল চুরির বিষয়টি তাঁরা শুনেছেন। তবে এ ঘটনায় কেউ থানায় অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন