default-image

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে এক বিধবা নারীকে (৩৩) ধর্ষণের অভিযোগে করা মামলায় এক তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার তরুণের নাম মো. নাইম (১৯)। গতকাল সোমবার রাতে ঝিনাইগাতী থানার পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই নারী গতকাল রাতে নাইমের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ঝিনাইগাতী থানায় মামলা করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয়, ১৫ এপ্রিল রাতে উপজেলার একটি গ্রামে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ওই নারী তাঁর এক সন্তানকে নিয়ে ঝিনাইগাতী উপজেলার গ্রামের বাড়িতে থাকেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে নাইম ওই নারীর ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করেন। ঘটনাটি প্রকাশ করলে ওই নারীকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে চলে যান নাইম। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে গতকাল রাতে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে আপস-মীমাংসার চেষ্টা চলে। এ সময় ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা সেখানে যান। পুলিশ অভিযুক্ত নাইমকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ঝিনাইগাতী থানার ওসি মোহাম্মদ ফায়েজুর রহমান আজ মঙ্গলবার সকালে প্রথম আলোকে বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার নারী নাইমকে আসামি করে ঝিনাইগাতী থানায় মামলা করেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ওই নারীকে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তার নাইমকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন