বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আরিফ রেজা আরও বলেন, গতকাল রাতে শেরপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ ফিরোজ আল মামুন ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মুনসুর আহাম্মদ বাংলাদেশ আন্তজেলা ট্রাক চালক ইউনিয়নের (বি-১৬৬৫) শেরপুর জেলা কার্যালয়ে যান। এ সময় তাঁরা সংগঠনের কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখতে নেতাদের প্রতি নির্দেশ দেন। পরে সংগঠনের কার্যালয়ে তালা মেরে দেওয়া হয়। এ ছাড়া কাল বুধবার জেলা প্রশাসকের সঙ্গে উভয় সংগঠনের নেতাদের বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। সবদিক বিবেচনা করে ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতি স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শেরপুর জেলা ট্রাক মিনিট্রাক ট্যাংকলরি ও কাভার্ড ভ্যান চালক শ্রমিক ইউনিয়ন। ফলে আজ ভোর থেকে ট্রাকসহ পণ্যবাহী যানবাহন যথারীতি চলাচল করছে।

বাংলাদেশ আন্তজেলা ট্রাক চালক ইউনিয়নের (বি-১৬৬৫) শেরপুর জেলা সভাপতি আবদুস সামাদ প্রশাসনের নির্দেশে তাঁদের কার্যালয় বন্ধ রাখার কথা নিশ্চিত করেছেন। কাল জেলা প্রশাসকের সঙ্গে তাঁরা বৈঠক করবেন বলে জানান তিনি।

শেরপুর সদর থানার ওসি মুনসুর আহাম্মদ প্রথম আলোকে বলেন, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের প্রতিনিধি হিসেবে ইউএনও এবং তিনি ওই সংগঠনের কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। তাঁরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে সংগঠনের কার্যালয়টি বন্ধ করে দিয়েছেন। কাল জেলা প্রশাসকের সঙ্গে উভয় সংগঠনের বৈঠকের পর পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

শ্রমিকদের চলমান বিরোধ নিয়ে গতকাল প্রথম আলোর অনলাইন সংস্করণে ‘ট্রাকশ্রমিকদের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন, কর্মবিরতি ঘোষণা’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন