default-image

শেরপুরে আরও দুজনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। তাঁদের নিয়ে জেলায় সাত মাসে কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দাঁড়াল ৫০০। গতকাল মঙ্গলবার সিভিল সার্জন এ কে এম আনওয়ারুর রউফ প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান।
গতকাল রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব থেকে পাঠানো প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জেলা সিভিল সার্জন বলেন, সাত মাসে কোভিড-১৯–এ আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৭৮ জন। মারা গেছেন নয়জন। শনাক্ত হিসেবে সুস্থতার হার ৯৫ দশমিক ৭ শতাংশ। নতুন শনাক্ত ব্যক্তিদের একজন শেরপুর সদরের। আরেকজন ঝিনাইগাতী উপজেলার।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন আনওয়ারুর রউফ প্রথম আলোকে বলেন, গত শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত জেলায় কেউ কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হননি। তবে গতকাল দুজন আক্রান্ত হয়েছেন। এই ঘটনা শীতে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার পূর্বসংকেত। তিনি আরও বলেন, গত ৫ এপ্রিল জেলায় প্রথম দুই নারীর করোনা শনাক্তের পর সাত মাসে এই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০০। তাই করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সবাইকে সচেতন হওয়ার ও মাস্ক ব্যবহারসহ কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান তিনি।

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্র জানায়, গতকাল পর্যন্ত জেলায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে শেরপুর সদরে ২৪৫, নকলায় ৮৩, নালিতাবাড়ীতে ৮৫, ঝিনাইগাতীতে ৪০ ও শ্রীবরদী উপজেলায় ৪৭ জন রয়েছেন। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে ১৪ জন চিকিৎসকসহ ৬৮ জন স্বাস্থ্যকর্মী আর ৪০ জন পুলিশ সদস্য আছেন।

মন্তব্য পড়ুন 0