default-image

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় শোয়ার ঘরে ঝুলে ছিল অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূর লাশ। গতকাল শুক্রবার রাতে উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের শ্বাসকান্দর বড়দহ গ্রামের একটি বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই গৃহবধূর নাম বর্ষা রানী (১৯)। তিনি একই গ্রামের সুমন চন্দ্রের স্ত্রী।

পুলিশ জানায়, শোয়ার ঘরে গৃহবধূর লাশ ঝুলে থাকার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করা হয়। পরিবার বলছে, ওই গৃহবধূ আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খান বলেন, নিহত গৃহবধূর বাবা মানিক দাস বাদী হয়ে থানায় অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা করেছেন। আজ শনিবার সকালে লাশের ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন