বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল বিকেলে পুকুর থেকে জমিতে পানি সেচ দিতে যান আমজাদ। রাত হয়ে গেলেও তিনি না ফেরায় পরিবার চিন্তিত হয়ে পড়ে। পরিবার থেকে তাঁকে খোঁজাখুঁজি শুরু করা হয়। রাত নয়টার দিকে পুকুরপাড়ে শ্যালো মেশিনের সঙ্গে মাফলার প্যাঁচানো অবস্থায় তাঁকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে পুলিশের উপস্থিতিতে তাঁর লাশ উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে আসা হয়।

পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সোহরাওয়ার্দী হোসেন জানান, শ্যালো মেশিনে মাফলার আটকে শ্বাস বন্ধ হয়ে তিনি মারা যান। তিনি উপস্থিত থেকে লাশ উদ্ধার করেছেন। এ ঘটনায় স্বজনদের কোনো অভিযোগ না থাকায় রাতেই লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে এ বিষয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন