default-image

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে ‘বিধি লঙ্ঘন করে পদোন্নতি’র সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন স্কুলটির শিক্ষিকা রুনা লায়লা। গতকাল শুক্রবার রাতে মতিহার থানায় বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি মর্তুজা নুরের বিরুদ্ধে করা অভিযোগটি পুলিশ সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হিসেবে গ্রহণ করেছে।

মতিহার থানার উপপরিদর্শক ইমরান হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রুনা লায়লা প্রথমে থানায় এজাহার হিসেবে অভিযোগ করতে চেয়েছিলেন। তবে আইনের ধারার সঙ্গে সংগতিপূর্ণ না হওয়ায় এটি জিডি হিসেবে আদালতে যাবে।

শিক্ষক রুনা লায়লা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের অর্থনীতি বিষয়ের প্রভাষক। জিডিতে তিনি অভিযোগ করেন, ‘সাংবাদিক মর্তুজা নুর বাংলাদেশ প্রতিদিনের অনলাইন সংস্করণের “রাবিতে ‘বিধি লঙ্ঘন’ করে শিক্ষিকাকে পদোন্নতি দেওয়ায় আইইআর পরিচালকের পদত্যাগ” শিরোনামের একটি সংবাদ তাঁর ফেসবুক আইডি থেকে শেয়ার করেছেন। ওই সাংবাদিক যে খবর পরিবেশন করেছেন, তা নির্জলা মিথ্যা, বিদ্বেষপ্রসূত এবং হীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।’

জিডিতে আরও বলা হয়, ‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আমার প্রতিষ্ঠানের (আইইআর—শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট) প্রশাসন নিয়ন্ত্রণ করেন না। ওই সাংবাদিক শুধু আমার এবং আমার স্বামীর তথা আমার পরিবারের এবং উপাচার্যের মান-সম্মান ভূলুণ্ঠিত করার জন্য মিথ্যা বর্ণনায় সংবাদটি পরিবেশন এবং নিজের ফেসবুক থেকে শেয়ার করেছেন।’

এদিকে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগের ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার্স ইউনিটি। আজ শনিবার সংগঠনের সভাপতি আরাফাত রহমান ও সাধারণ সম্পাদক রিজভী আহমেদ যৌথ বিবৃতিতে এই প্রতিবাদ জানান।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য করুন