বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগে ২০০৮ ও ২০১৮ সালে জাকের পার্টির প্রার্থী হিসেবে গোলাম মোহাম্মদ ময়মনসিংহ-৩ আসন থেকে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। দুবারই তিনি পরাজিত হন। ২০০৩ সালে গোলাম মোহাম্মদ সহনাটি ইউপি নির্বাচনেও চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছিলেন। ওই নির্বাচনেও তিনি বিজয়ী হতে পারেননি।

গোলাম মোহাম্মদ প্রথম আলোকে বলেন, ‘জনপ্রতিনিধি হয়ে মানুষের সেবা করার মানসিকতা থেকেই নির্বাচন করে আসছি। এবার নির্বাচনে অবস্থা ভালো। স্থানীয় চাপে এবার নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছি, তাই জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। কোনো কোনো চেয়ারম্যান প্রার্থী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রভাব দেখাচ্ছেন। তবে এ ব্যাপারে আমি নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ করেছি।’

এদিকে সহনাটি ইউপির প্রার্থী শামসুজ্জামান জামাল প্রথম আলোকে জানান, ২০১৬ সালে তিনি ময়মনসিংহ-৩ আসনের উপনির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়ে পরাজিত হন। এবার নির্বাচনের পরিবেশ ভালো হওয়ায় নিজের জয়ের ব্যাপারে তিনিও আশাবাদী।

চতুর্থ ধাপে ২৬ ডিসেম্বর ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ১০ ইউপিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন