default-image

চা–দোকানি মোহাম্মদ হানিফ মিয়া ওরফে ননা মিয়া (৮০) গতকাল বুধবার সন্ধ্যার পর নিখোঁজ হন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৬টার দিকে বাড়ি থেকে আনুমানিক ৫০০ গজ দূরের ধানখেতে তাঁর লাশ পাওয়া যায়। নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার পূর্ব শ্রীনদ্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

কবিরহাট থানার পুলিশ আজ সকালে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে। তবে কে বা কারা এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত, সে ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ।

নিহত মোহাম্মদ হানিফ মিয়ার ছেলে মহিন উদ্দিন বলেন, তাঁর বাবা বুধবার সন্ধ্যা সাতটার দিকে কাগজিরটেক থেকে নতুন পুকুর এলাকার উদ্দেশে রওনা হন। রাত নয়টার দিকে তাঁর বাড়িতে ফেরার কথা ছিল। তিনি বাড়িতে না আসায় সারা রাত তাঁরা খোঁজাখুঁজি করেন। কিন্তু কোথায়ও তাঁর বাবাকে খুঁজে পাননি। পরে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টার দিকে একই এলাকার একটি ধানখেতে তাঁর বাবার রক্তাক্ত লাশ পাওয়া যায়।

কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা টমাস বড়ুয়া প্রথম আলোকে বলেন, মোহাম্মদ হানিফ মিয়া নামের ওই ব্যক্তি চা–দোকানি। গতকাল তিনি নিখোঁজ হন। আজ সকালে বাড়ি থেকে আনুমানিক ৫০০ গজ দূরের একটি ধানখেতে নাক, মুখ ও কানে জখম অবস্থায় তাঁর লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনার সঙ্গে কে বা কারা জড়িত, তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মহিন উদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা করেছেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন