বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ আওয়ামী লীগ সমর্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফারজানা ইসলামপন্থী শিক্ষকদের জোট। এই জোট থেকে সভাপতি পদে বিজয়ী হয়েছেন গণিত বিভাগের অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ। তিনি মোট ২৮৮টি ভোট পেয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মাহবুব কবির পেয়েছেন ২২৮ ভোট। এই জোট থেকে সাধারণ সম্পাদক পদে ইন্সটিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের অধ্যাপক মোতাহার হোসেন ২৯৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আমজাদ হোসেন পেয়েছেন ২৪৬ ভোট।

এই প্যানেল থেকে সহসভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ইসমত আরা এবং কোষাধ্যক্ষ পদে লোকপ্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ ছায়েদুর রহমান।

১০টি সদস্য পদের মধ্যে বঙ্গবন্ধু শিক্ষক পরিষদ ৮টি পদ পেয়েছে। এই প্যানেল থেকে নির্বাচিতরা হলেন ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজির অধ্যাপক এম শামীম কায়সার, প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক বুলবুল আহমেদ, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ নঈম আজিজ আনসারী, নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফাহমিদা আক্তার, নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আকবার হোসেন, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক যুগল কৃষ্ণ দাস, পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ হাফিজুর রহমান এবং ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দা ফাহলিজা বেগম।

অন্যদিকে উপাচার্যবিরোধী শিক্ষকদের প্যানেল শিক্ষক ঐক্য ফোরামের যুগ্ম সম্পাদকসহ তিনটি পদে নির্বাচিত হয়েছে। এই প্যানেল থেকে নির্বাচিত হয়েছেন যুগ্ম সম্পাদক পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক শাহেদ রানা এবং সদস্যা পদে নির্বাচিতেরা হলেন ফার্মাসি বিভাগের অধ্যাপক সোহেল রানা ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক মনোয়ার হোসেন।

নির্বাচিত হওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নবনির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক লায়েক সাজ্জাদ এন্দেল্লাহ প্রথম আলোকে বলেন, ‘শিক্ষকদের পেশাগত স্বার্থ সংরক্ষণ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে শিক্ষকদের সঙ্গে নিয়ে আমরা কাজ করব। শিক্ষা ও গবেষণার মান উন্নয়নে প্রশাসনকে সহায়তা করব।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন