বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সংগঠনের সভাপতি হাবিবুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অনিরুদ্ধ দাস।

সভায় অনিরুদ্ধ দাস বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে মূল্যবৃদ্ধি ও তেল পাচারের অজুহাত দেখিয়ে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম হঠাৎ করে লিটারপ্রতি ১৫ টাকা বাড়ানোয় দেশবাসী বিস্মিত হয়েছে। মালিকশ্রেণির স্বার্থে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে কৃষি, পরিবহন, শিল্প ও বিদ্যুৎ খাতে এবং কাঁচাবাজারে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। ইতিমধ্যে বাস ও লঞ্চের ভাড়া যথাক্রমে ২৭ ও ৩৬ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু পরিবহন মালিকেরা বিআরটিএ ঘোষিত বর্ধিত ভাড়ার চেয়ে অতিরিক্ত ভাড়া যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করছে। সরকার ও পরিবহন মালিকদের সাজানো নাটকের মাধ্যমেই এ ভাড়া বাড়ানো হয়েছে।

সভায় সিপিবি সিলেট জেলার নেতা বীরেন্দ্র চন্দ্র দেব, সহকারী সাধারণ সম্পাদক খায়রুল হাছান, সাথী রহমান, আনিসুর রহমান, এনায়েত হাসান, তুহিন কান্তি ধর প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সভায় বক্তারা আরও বলেন, অবিলম্বে ডিজেল, কেরোসিন, এলপিজির বর্ধিত মূল্য এবং পরিবহনের বর্ধিত ভাড়া প্রত্যাহার করতে হবে। দেশের শাসনব্যবস্থার এই জনস্বার্থবিরোধী নীতি এবং ফ্যাসিবাদী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন-সংগ্রাম গড়ে তোলার জন্য দেশের বাম, প্রগতিশীল ও গণতান্ত্রিক শক্তিকে এগিয়ে আসার জন্য বক্তারা আহ্বান জানান।

এদিকে সভার শুরুতে প্রয়াত কমরেড শ্রীকান্ত দাশ ও কমরেড ভবতোষ চৌধুরীর স্মৃতির স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন