বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজ শুক্রবার বিকেলে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক অনুষ্ঠানে ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন মন্ত্রী। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে মন্ত্রীর ঐচ্ছিক তহবিল থেকে দুস্থদের মধ্যে ১০ লাখ টাকার অনুদান, ১০টি ক্লাবকে ক্রীড়াসামগ্রী, সমাজসেবা অধিদপ্তর ক্যানসার ও জটিল রোগে আক্রান্ত ২৮ জনকে ১৪ লাখ টাকার চেক, ৭৯ জনকে ২১ লাখ টাকা পল্লী সমাজসেবার সুদমুক্ত ঋণ দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানটির সহযোগিতায় ছিল উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়।

মন্ত্রী বলেন, কে কোন দলের, কে কোন মতের, কে কোথায় ভোট দেন, সেটা বিবেচনা করা হয়নি। যিনি সত্যিকার অর্থে রোগাক্রান্ত এবং দুস্থ, তাঁকেই এসব সহায়তা দেওয়া হচ্ছে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আমার ব্যক্তিগত ঐচ্ছিক তহবিল থেকেও সহায়তা দিয়ে যাচ্ছি। সেটির ক্ষেত্রেও কে কোন দলের, তা কখনো দেখিনি। এটিই হচ্ছে আমাদের দলের নীতি। এসব কারণে আমাদের দেশের প্রত্যেক মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়েছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, এটি অনেকে স্বীকার করতে চাই না। তাই যাঁরা এ ধরনের সহায়তা পাচ্ছেন, তাঁদের অনুরোধ জানাব, আপনারা যে সহায়তা পাচ্ছেন, তা যেন সবার মাঝে প্রচার করা হয়।’

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খেলাধুলার উন্নয়নের জন্য নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন ক্রীড়ামোদী সরকারপ্রধান। তাঁর হাত ধরেই বাংলাদেশে ক্রিকেটের টেস্ট স্ট্যাটাস এসেছে। আমাদের যুব ক্রিকেট দল বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আমাদের নারী ফুটবল দল পাকিস্তানসহ আরও অনেককে হারিয়েছে। আমাদের পুরুষ ক্রিকেট দলও পৃথিবীর সব ক্রিকেট শক্তিকে হারিয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে খেলাধুলার উন্নয়নে প্রতিবছর ক্রীড়াসামগ্রী প্রদান করা হয়। আমি ব্যক্তিগতভাবে ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করি, রাঙ্গুনিয়ায় যাতে এসব সহায়তা পায়।’

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইফতেখার ইউনুসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান স্বজন কুমার তালুকদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম তালুকদার, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসান, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আকতার হোসেন খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এমরুল করিম, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক জসিম উদ্দিন তালুকদার, রাঙ্গুনিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জিগারুল ইসলাম প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন