default-image

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম জামাল আহমেদ কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল শনিবার তাঁর করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়।

আজ রোববার মুঠোফোনে ইউএনও নিজেই এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

ইউএনও এস এম জামাল আহমেদ প্রথম আলোকে জানান, ঠান্ডা, জ্বর, কাশিসহ কিছু উপসর্গ দেখা দেওয়ায় তিনি করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। বগুড়ার ল্যাবরেটরিতে সেই নমুনা পাঠানোর পর গতকাল তাঁর পরীক্ষার প্রতিবেদন পজিটিভ আসে।

ইউএনও আরও বলেন, ‘আমার কাশি ও হালকা জ্বর রয়েছে। বড় ধরনের কোনো শারীরিক সমস্যা না থাকায় সরকারি বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছি।’

বিজ্ঞাপন

করোনাভাইরাস মহামারি দেখা দেওয়ার পর থেকেই ইউএনও এস এম জামাল আহমেদ নানা মানবিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করে ব্যাপক প্রশংসিত হন।

ইউএনও’র বিভিন্ন ধরনের মানবিক কাজের মধ্যে সন্তানসম্ভবা মানসিক প্রতিবন্ধী এক নারীকে পুনর্বাসনের ঘটনাটি সবচেয়ে আলোচিত হয়। মাসখানেক আগে সাঁথিয়া বাজারে মানসিক প্রতিবন্ধী সন্তানসম্ভবা এক নারীকে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়। ওই নারীর পরিচয় জানা যায়নি। ইউএনও নিজে উদ্যোগী হয়ে ওই নারীকে প্রথমে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যান। পরে তাঁকে পুনর্বাসনের জন্য রাজশাহী নারী পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠান। এ ছাড়া করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে লকডাউনের এলাকাগুলোয় ঝুঁকি নিয়ে নিজেই বাড়ি বাড়ি খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি। কর্মহীন অনেক দুস্থ পরিবারের পাশেও দাঁড়িয়েছিলেন।

মন্তব্য করুন