default-image

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ ) আসনের সাংসদ মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েসের মরদেহ সিলেটে এসে পৌঁছেছে। ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে করে তাঁর লাশ আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ সার কারখানার এনজিএফএফ খেলার মাঠে আনা হয়।

সেখানে আনুষ্ঠানিকতা শেষে অ্যাম্বুলেন্সে করে মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর মরদেহ ফেঞ্চুগঞ্জে নিজ বা‌ড়ি নুরপুরে নেওয়া হয়। পারিবারিক সূত্র জানায়, তাঁর মরদেহ নিজ বাড়িতে দলীয় নেতা–কর্মীসহ সবাই শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করবেন। বিকেল সোয়া ৫টায় সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ কাসিম আলী সরকারি মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে জানাজা শেষে বাড়ির সামনে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁকে দাফন করা হবে।

মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর ব‌্যক্তিগত সহকারী জুলহাস আহমদ বলেন, পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আজ বিকেলে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাঁর বাবার পাশেই সাংসদের মরদেহ সমাহিত করা হবে।

বিজ্ঞাপন
default-image

গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সাংসদ ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস। এর আগে ৭ মার্চ রাতে তি‌নি সিলেট থেকে ঢাকায় ফিরেছিলেন। পরে অসুস্থতা বোধ করায় এক‌টি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন নমুনা পরীক্ষায় তিনি করোনা শনাক্ত হন। বৃহস্পতিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

এদিকে প্রয়াত সাংসদের স্মরণে ১০ দিনের শোক পালন কর্মসূচি নিয়েছে ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ। আজ থেকে শুরু করে কর্মসূচি চলবে ২১ মার্চ পর্যন্ত। কর্মসূচির মধ্যে পবিত্র কোরআন খতম ও দোয়া মাহফিল, কালো ব্যাজ ধারণ, শোক বইয়ে স্বাক্ষর ও দলীয় কার্যালয়ে কালো পতাকা উত্তোলন এবং ফেঞ্চুগঞ্জের প্রতিটি মসজিদে বাদ জুমা দোয়া মাহফিল।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন