default-image

টাঙ্গাইল জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাংস্কৃতিক কর্মকর্তাকে হত্যার বিচার দাবিতে রাজবাড়ীতে মানববন্ধন করা হয়েছে। আজ বুধবার বেলা ১১টায় রাজবাড়ী জেলা শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে প্রতিষ্ঠানটির সামনের সড়কের পাশে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

নিহত ওই সাংস্কৃতিক কর্মকর্তার নাম খন্দকার রেদওয়ানা ইসলাম। তিনি টাঙ্গাইল জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে কর্মরত ছিলেন। ২৭ মার্চ বেলা তিনটার দিকে টাঙ্গাইলের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি হত্যাকাণ্ডের শিকার হন।

মানববন্ধন কর্মসূচি সঞ্চালনা করেন রাজবাড়ী জেলা সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা পার্থ প্রতীম দাস। সেখানে বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও জেলা শিল্পকলা একাডেমির সহসভাপতি হেদায়েত আলী, সাবেক জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সৈয়দ সিদ্দিকুর রহমান, নাট্যকার অজয় দাস তালুকদার, চিত্রশিল্পী গোলাম আলী, নাট্যনির্দেশক গোলাম মোর্তজা সাগর, প্রশিক্ষক চায়না সাহা, জান্নাতুল ফেরদৌস প্রমুখ। কর্মসূচিতে বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।

বক্তারা বলেন, হাসপাতালে কেবিনে রেদওয়ানা ইসলামকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। ২২ মার্চ তিনি কন্যাসন্তান জন্ম দেন। জন্মের পাঁচ দিনের মধ্যে শিশুটি তাঁর মাকে হারায়। রেদওয়ানাকে হত্যার পর থেকে তাঁর স্বামী দেলোয়ার হোসেন পলাতক। সিসিটিভির ফুটেজ দেখে নিহত নারীর ভাই দেলোয়ারের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত আসামি গ্রেপ্তার হয়নি।

বক্তারা আরও বলেন, বর্তমান সরকার নারীবান্ধব সরকার। নারীর ক্ষমতায়ন ও কর্মক্ষেত্রের সব স্তরে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। এমন সময় একজন দক্ষ নারী কর্মকর্তাকে নির্মমভাবে খুন করা হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার করে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন