default-image

চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বর্তমান মেয়র ও আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ জোবায়ের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন বিকেলে বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী এ জেড এম মঈনুল হক চৌধুরী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী (নৌকা প্রতীক) মোহাম্মদ জোবায়ের বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। চট্টগ্রামের জ্যেষ্ঠ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আতাউর রহমান প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ জোবায়ের ও বিএনপির এ জেড এম মঈনুল হক চৌধুরী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। এ ছাড়া সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৬ জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৮ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। চতুর্থ ধাপে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি সাতকানিয়া পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

স্থানীয়ভাবে দলের কিছু নেতা-কর্মী আমার বিরোধিতা করে চলেছেন। তাঁরা রাস্তাঘাটে অশালীন কথাবার্তা বলে আমার মান-সম্মানের ক্ষতি করে চলেছেন। তাই নিজের ইচ্ছায় ও মান-সম্মানের দিকে তাকিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছি।
এ জেড এম মঈনুল হক চৌধুরী, বিএনপির প্রার্থী

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের ব্যাপারে জানতে চাইলে এ জেড এম মঈনুল হক চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, ‘দলের পক্ষ থেকেই মেয়র পদে আমাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু স্থানীয়ভাবে দলের কিছু নেতা-কর্মী আমার বিরোধিতা করে চলেছেন। তাঁরা রাস্তাঘাটে অশালীন কথাবার্তা বলে আমার মান-সম্মানের ক্ষতি করে চলেছেন। তাই নিজের ইচ্ছায় ও মান-সম্মানের দিকে তাকিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছি।’

চট্টগ্রামের জ্যেষ্ঠ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আতাউর রহমান বলেন, সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দুজন প্রার্থীই ছিলেন। তাঁদের মধ্যে একজন প্রার্থী স্বেচ্ছায় মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। ফলে আওয়ামী লীগের মেয়র পদপ্রার্থী মোহাম্মদ জোবায়ের বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন