বিজ্ঞাপন

করোনাকালে এমন মানবিক উদ্যোগ নিয়ে সাড়া ফেলেছে সাতক্ষীরার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো। স্থানীয় তরুণেরা এসব সংগঠনে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে কাজ করছেন। যেসব সংগঠন এসব কাজ করছে সেগুলো হলো হিউম্যানিটি ফার্স্ট, সাতক্ষীরা সরকারি বিদ্যালয় এক্স স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, সাতক্ষীরা ব্লাড ব্যাংক, সাতক্ষীরা ব্লাড ফাউন্ডেশন, ৯৩ ফ্রি অক্সিজেন সেবা, শ্যামনগর অনলাইন অক্সিজেন ব্যাংক, শ্যামনগর অনলাইন ব্লাড ব্যাংক, উপসর্গ অক্সিজেন সেবা কেন্দ্র, সংকল্প, অনুলিয়া অক্সিজেন ব্যাংক, তালা কোভিড রেসপন্স টিম ও উত্তরণ অক্সিজেন, কলারোয়া সেবা সংগঠন, কাজীরহাট ব্লাড ব্যাংক ও কালীগঞ্জ ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিস।

শহরের পলাশপোল এলাকার হোসেন আলী বলেন, সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে শয্যাসংকটের কারণে তাঁর স্ত্রীকে ভর্তি করাতে পারেননি। বাধ্য হয়ে বাড়িতে চিকিৎসা দেওয়া শুরু করেন। হঠাৎ অক্সিজেনের দরকার হলে সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের এক্স স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অফিসে যোগাযোগ করলে তারা বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দেয়। সময়মতো অক্সিজেন না পেলে তাঁর স্ত্রীর অবস্থা গুরুতর হতে পারত, সেটা হয়নি।

সাতক্ষীরা সরকারি উচ্চবিদ্যালয়ের এক্স স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন সমন্বয়ক কামরুজ্জামান বলেন, ৯ জুন থেকে তাঁরা ১৫ জুলাই পর্যন্ত ২১০ জনকে অক্সিজেন সেবা দিয়েছেন। করোনা রোগীদের জন্য সাতক্ষীরা শহর ছাড়াও তালা, কলারোয়া, দেবহাটা ও আশাশুনিতে বিনা মূল্য অক্সিজেন সরবরাহ করা হয়েছে।

জেলার যে প্রান্ত থেকেই সহযোগিতা চাওয়া হচ্ছে, সেখানেই তাঁরা অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন বলে জানালেন তালা কোভিড রেসপন্স টিম ও উত্তরণ অক্সিজেন সংগঠনের সমন্বয়কারী প্রণব ঘোষ। তিনি বলেন, বিশেষ করে রাতে হাসপাতালে এসে ভর্তি হতে পাচ্ছেন না। রোগীর অবস্থা খারাপ, শ্বাসকষ্টে হাঁসফাঁস করছেন। কেউ সেই খবর জানালে তাঁরা অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন।

কালীগঞ্জ ফ্রি অক্সিজেন সার্ভিসের উপসমন্বয়কারী হাফিজুর রহমান বলেন, এ পর্যন্ত তাঁদের সংগঠন ১৩০ জনের অক্সিজেন সেবা দিয়েছে। নাগরিক আন্দোলন মঞ্চের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সুভাষ সরকার বলেন, সাতক্ষীরায় করোনা ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। করোনা ডেডিকেডেট হাসপাতালে শয্যাসংকট রয়েছে। বেসরকারি হাসপাতালে ব্যয়ভার বহন করা কঠিন। অক্সিজেনের সংকট রয়েছে হাসপাতালগুলোতে। মহামারির এই সময়ে এমন উদ্যোগ মানুষকে সাহস জোগায়।

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা সিভিল সার্জন হুসায়ন সাফায়াত বলেন, করোনাকালে অক্সিজেন নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে কয়েকটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। মানুষ এতে উপকৃত হচ্ছে। স্বেচ্ছাসেবীদের এই মানবিক উদ্যোগকে সবার স্বাগত জানানো উচিত।
এদিকে সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে সম্প্রতি বিনা মূল্যে অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম আশিকুর রহামন, সাধারণ সম্পাদক সুমন হোসেন, সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আজমল হোসেন প্রমুখ।

ছাত্রলীগের নেতারা জানান, করোনা রোগীর অক্সিজেন প্রয়োজন হলে কেউ সংবাদ দিলে সেখানে পৌঁছে যাবে অক্সিজেন ভর্তি সিলিন্ডার।

জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে চালু করা হয়েছে ‘হেল্প ডেস্ক’। সম্প্রতি শহরের ইটগাছায় এ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক ইফতেখার আলী। তিনি বলেন, এখন থেকে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন ও স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন