default-image

গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের সীমানাপ্রাচীর ঘেঁষে পড়ে থাকা অজ্ঞাত লাশের পরিচয় পেয়েছে র‍্যাব-১ গাজীপুর ক্যাম্প। গতকাল শুক্রবার রাত সোয়া ১১টার দিকে র‍্যাব গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।

নিহত ব্যক্তির নাম কবির হাসান (২২)। তিনি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার নয়াপাড়া গ্রামের জাবিউল ইসলামের ছেলে।

এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার তিনজন হলেন ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার গালিমপুর গ্রামের রুস্তম আলীর ছেলে মো. মাসুদুর রহমান (৩৭), একই উপজেলার জালালপুর গ্রামের আবদুল হাকিমের ছেলে মো. আবদুল হালিম (৩৬) ও যশোরের চৌগাছা উপজেলার চৌগাছা গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে লাল্টু মিয়া (৪০)।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১ এপ্রিল রাজধানীর পল্লবীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তাঁরা জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন, ২৫ মার্চ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার খংসারদী সেতুর নিচে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ পাওয়ার ঘটনায় তাঁরা জড়িত। তবে কী কারণে এসব হত্যাকাণ্ড, তা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা নেই।

গত ৩০ মার্চ ভোরে সাফারি পার্কের ৪ নম্বর ফটকের পাশে সীমানাপ্রাচীরের কাছে মুখে স্কচটেপ প্যাঁচানো অবস্থায় একটি মরদেহ পাওয়া যায়।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন