সাভারে শিশু ও শিল্প পুলিশসহ আরও ১৩ জন আক্রান্ত

বিজ্ঞাপন
default-image

ঢাকার সাভারে সাত বছরের এক শিশু ও শিল্প পুলিশের এক সদস্যসহ গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে সাভারে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৩৫।

সাভারের তুলনায় পাশের উপজেলা ধামরাইয়ে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কম। 

সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, করোনাভাইরাস শনাক্তকরণের জন্য গতকাল বৃহস্পতিবার ৬৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে সাভারের প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিএলআরআই) ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। পরীক্ষা করে ১৩ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়।
এদিকে ধামরাই থেকে গত বৃহস্পতিবার একই ল্যাবে ৭৪ জনের নমুনা পাঠানো হয়েছিল। এর মধ্যে একজনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়।
সাভার পৌর এলাকার একটি পাড়ার বাসিন্দারা বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁদের এলাকার এক গৃহবধূর করোনা পজিটিভ হয়েছে। জানার পরও ওই পরিবারের পুরুষ সদস্যরা তথ্য গোপন করে আজ শুক্রবার সকাল থেকে সাভার নামাবাজারের বিভিন্ন দোকানে কেনাকাটা করেছেন। কেউ জানতে চাইলে তাঁরা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরকে গুজব বলে প্রচার করেন। পরে তাঁরা সাভার থানাকে জানালে পুলিশ আজ বিকেলে বাড়িটি লকডাউন করে দেয়।
সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সায়েমুল হুদা বলেন, সভারে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৯৮০ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৩৫ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। তাঁদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৭ জন। হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন আছেন সাতজন এবং মারা গেছেন দুজন। বাকিরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
আক্রান্ত ব্যক্তি ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে জানতে চাইলে সায়েমুল হুদা বলেন, প্রতিবেদন পাওয়ার পরপরই সংশ্লিষ্ট থানাকে আক্রান্তদের তথ্য দিয়ে দেওয়া হয়। পরে থানা থেকে তাঁদের বাড়ি লকডাউন করে দেয়।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন