বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আহত সাগর মোল্লা বলেন, ‘নির্বাচনী প্রচারণার একপর্যায়ে রাখালগাছা বাজারে এলে মিনহাজ চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে তাঁর সহযোগীরা রড ও পাইপ নিয়ে আমাদের ওপর হামলা করেন। এ সময় তিনটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়েছে।’

মুঠোফোনে মুকুল হায়দারের স্ত্রী নাজমুন নাহার বলেন, স্বামীর চিকিৎসার জন্য তাঁরা সবাই রাজশাহীতে অবস্থান করছেন। চিকিৎসা শেষে সিংড়ায় ফিরে এসে মামলা করবেন।

অভিযোগের বিষয়ে তাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিনহাজ উদ্দিন বলেন, ‘মুকুল হায়দার বহিরাগত লোকজন নিয়ে অফিসের সামনে এসে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন। এ সময় আমার সমর্থকদের সঙ্গে তাঁদের হাতাহাতি হলে মুকুল হায়দারের লোকজনকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সেখানে মোটরসাইকেল ভাঙচুরের কোনো ঘটনা ঘটেনি।’

সিংড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। এ ঘটনায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন