বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিহত গৃহবধূ হলেন চৌগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলীর স্ত্রী শিল্পী বেগম (৪৫)। এ ঘটনায় তাঁর ছোট বোন লাভলি খাতুন (৩৫) আহত হয়েছেন। তাঁদের ওপর হামলা চালানোর অভিযোগে চৌগ্রাম ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলামসহ দুজনকে আটক করা হয়েছে।
সিংড়া থানা সূত্রে জানা যায়, আজ সকাল সাড়ে আটটার দিকে চৌগ্রামের রহমান আলীর ছেলে যুবলীগ নেতা রবিউল ইসলামসহ ১০ থেকে ১২ জন বাড়ির পাশের একটি বিরোধপূর্ণ জমিতে ধান রোপণ শুরু করেন। এ সময় তাঁর দুই চাচাতো বোন শিল্পী বেগম ও লাভলি খাতুন সেখানে গিয়ে ধান রোপণে বাধা দেন। এ সময় তাঁদের ছুরিকাঘাতে গুরুতর জখম করা হয়। শিল্পী বেগম একই গ্রামের ইদ্রিস আলীর স্ত্রী। ইদ্রিস আলী কিছুদিন আগে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

ঘটনার পর প্রতিবেশীরা শিল্পী বেগম ও তাঁর বোন লাভলি খাতুনকে উদ্ধার করে সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। এ সময় সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক শিল্পী বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। লাভলি খাতুন বর্তমানে ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রবিউল ইসলামসহ দুজনকে আটক করে থানায় নিয়ে গেছে।
শিল্পীর ভাই রতন আলী অভিযোগ করেন, ‘পৈতৃক সম্পত্তি ভাগ-বাঁটোয়ারা না করে রবিউল ইসলাম জোর করে ভোগদখল করছিলেন। দুদিন আগে বিষয়টি সিংড়া থানায় জানালে একজন পুলিশ কর্মকর্তা গতকাল শনিবার এলাকায় এসে বিষয়টি মীমাংসা করার প্রস্তাব দিয়ে যান। অথচ আজ সকালে তাঁরা জোর করে বিরোধপূর্ণ জমিতে ধান রোপণ করতে গেলে আমার বোনেরা তাঁদের বাধা দেন। এ সময় প্রতিপক্ষ তাঁদের ছুরিকাঘাত করে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।’  
এ বিষয়ে সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুর-এ-আলম সিদ্দিকী জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহত শিল্পীর লাশ সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন