default-image

নরসিংদীর পলাশে সিএনজিচালিত একটি অটোরিকশা উল্টে এক নারী যাত্রী নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন অটোরিকশাটির আরও চারজন যাত্রী। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার মাঝেরচর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নরসিংদী সদর হাসপাতালের রেকর্ড সূত্রে জানা গেছে, নিহত ওই নারীর নাম বেগম (৫০)। তিনি গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার সাওরাইদ গ্রামের বাসিন্দা। তাঁর স্বামীর নাম ইসমাইল মিয়া।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানান, গাজীপুর থেকে আসা ওই নারী তাঁর মেয়েকে নিয়ে পলাশ হয়ে নরসিংদী শহরে আসছিলেন। পলাশ বাসস্ট্যান্ড থেকে একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশায় উঠেছিলেন তাঁরা। দ্রুতগতিতে আসার পথে উপজেলার মাঝেরচর এলাকায় রাস্তা পারাপাররত পথচারী দুই শিশুর মুখোমুখি পড়ে গেলে তাদের বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অটোরিকশাটি উল্টে যায়। এ সময় অটোরিকশাটির চালকসহ মোট পাঁচ যাত্রী গুরুতর আহত হন।

মীম (৬) নামের আহত এক শিশুর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে পাঠানো হয়েছে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে

পরে স্থানীয় লোকজন দুর্ঘটনায় আহত পাঁচজনকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেন। হাসপাতালে নেওয়ার পথে বেগম নামের ওই নারী মারা যান। অটোরিকশাটির চালকসহ আহত তিনজন সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। আর মীম (৬) নামের আহত এক শিশুর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে পাঠানো হয়েছে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে।

বিজ্ঞাপন

নরসিংদী সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সৈয়দ আমীরুল হক শামীম জানান, ওই নারীকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছে। পরে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

পলাশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন জানান, নিহত ওই নারীর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ওই নারীর স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন